Saturday, July 2, 2022
Homeজেলাউত্তর দিনাজপুরসমকামী সম্পর্কে রাজি না হওয়ায়,বান্ধবীর বাড়িতে গিয়ে আত্মঘাতী তরুণী!
Advertisement

সমকামী সম্পর্কে রাজি না হওয়ায়,বান্ধবীর বাড়িতে গিয়ে আত্মঘাতী তরুণী!

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল:  বছর দুয়েকের সমকামী সম্পর্ক। সম্প্রতি তা থেকে বেরোতে চাইছিল দ্বাদশ শ্রেণির পড়য়া। কিন্তু, তাতে রাজি ছিলেন না। তরুণী। এনিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই দু’জনের মধ্যে টানাপোড়েন চলছিল। শনিবার সন্ধ্যায় নাবালিকার বাড়িতে তার সঙ্গে দেখা করতে যান তরুণী।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

সেখানে দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটির কিছুক্ষণ বাদে নাবালিকার ঘর থেকে উদ্ধার হল তরুণীর অগ্নিদগ্ধ দেহ। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে নোয়াপাড়া থানার ইছাপুর আনন্দমঠ সি ব্লক এলাকায়।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তাঁদের অভিযোগ, চৰ্চিতাকে পরিকল্পনামাফিক খুন করা হয়েছে। অভিযোগ অস্বীকার করেছে নাবালিকার পরিবার।নাম চৰ্চিতা বন্দ্যোপাধ্যায় (২০)। ঘটনায় ইতিমধ্যেই মৃতার পরিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তাঁদের অভিযোগ, চৰ্চিতাকে পরিকল্পনামাফিক খুন করা হয়েছে। অভিযোগ অস্বীকার করেছে নাবালিকার পরিবার।

স্থানীয় এবং পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বারাকপুর পঞ্চাননতলা এলাকার বাসিন্দা চর্চিতা পড়াশোনা শেষ করে বিউটিশিয়ান কোর্স করছিলেন। বছর দুয়েক আগে তাঁর সঙ্গে ইছাপুর আনন্দমঠ সি ব্লকের বাসিন্দা ওই ছাত্রীর ফেসবুকে আলাপ হয়। এরপর দু’জনের মোবাইল নম্বর আদান-প্রদান হয়। মৃতার পরিবারের দাবি, তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

একে অপরের বাড়িতে যাতায়াতও ছিল। কিন্তু, সম্প্রতি তাতে চিড় ধরে। ওই ছাত্রী চর্চিতার সঙ্গে আর সম্পর্ক রাখতে চাইছিল না। যোগাযোগ বন্ধ করতে সে চর্চিতার মোবাইল নম্বরও ব্লক করে দেয়। শনিবার সন্ধ্যার পর চর্চিতা ইছাপুরে নাবালিকার বাড়িতে গিয়ে তাকে সম্পর্ক ঠিক করে নেওয়ার অনুরোধ করে। কিন্তু, নাবালিকা তাতে রাজি হয়নি।

নাবালিকার পরিবারের দাবি, কথা বলার পর সে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। হঠাৎই প্রতিবেশীদের চিৎকারে তাঁরা জানতে পারেন ঘরে আগুন লেগেছে। ঘরে ঢুকে চর্চিতাকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় দেখে উদ্ধার করে বারাকপুর বিএন বসু হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!