শুভেন্দু অধিকারী সড়কপথে এলে, ওর মৃতদেহ যেত নন্দীগ্রামে! বিতর্কিত মন্তব্য চোপড়ার তৃণমূল প্রার্থী হামিদুল রহমানের

খড়গপুর ২৪×৭: শুভেন্দু অধিকারী সড়কপথে এলে, ওর মৃতদেহ যেত নন্দীগ্রামে! বিতর্কিত মন্তব্য চোপড়ার তৃণমূল প্রার্থী হামিদুল রহমানের।

তিনি শুভেন্দু অধিকারীর উদ্যেশে বলেন,ওর লাখ ভালো বাইরুট যায়নি। বাইরুট গেলে না ‘শুভেন্দু অধিকারীর ডেড বডি পাবলিক পাঠাতো নন্দীগ্রামে। দিদির সঙ্গে যা করেছে এখানকার পাবলিক যা উত্তেজিত ছিলো। সবাই লাঠি,জুতো নিয়ে সবাই জমায়েত ছিলো। ওর লাখ ভালো যে হেলিকপ্টারে উঠে চলেগেছে। নাহলে কেমন গালিগালাজ দিতো টাইমও পেত না। এভাবেই চাঁচাছোলা ভাষায় মন্তব্য করলেন চোপড়ার বিধায়ক তথা চোপড়া বিধানসভার তৃণমুল প্রার্থী হামিদুল রহমান।

যা নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়েছে বিজেপি ও তৃণমুল কংগ্রেসের মধ্যে। বিজেপি নেতা সুরজিৎ সেন পালটা হামিদুল রহমানকে সতর্ক হওয়ার জন্য হুশিয়ারি দিয়েছেন। তিনি বলেন,মুখে বলতে সহজ গায়ে একবার হাত দিয়ে দেখুক।

এদিন উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়ার দাসপাড়া এলাকায় নির্বাচন প্রচারে আসেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী এবং সেখানে একটি জনসভাও করেন।

শুভেন্দু বাবু এই জনসভায় আসেন আকাশ পথে হেলিকপ্টারে। লক্ষনীয়ভাবে দেখা যায় এদিন চোপড়া থেকে দাসপাড়া অবধি রাস্তায় বিভিন্ন মোড়ে কালো পতাকা হাতে তৃণমূল সমর্থকরা দাঁড়িয়ে ছিলেন। তাদের মুখে ছিল শুভেন্দু অধিকারী গো ব্যাক স্লোগান।