Thursday, December 2, 2021
Homeউত্তর ২৪ পরগনানাবালিকা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ,গ্রেফতার যুবক
Advertisement

নাবালিকা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ,গ্রেফতার যুবক

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে নাবালিকা ছাত্রীকে অপহরণ করে তুলে নিয়ে গিয়ে দফায় দফায় ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

আর এই অভিযোগের ভিত্তিতে দেগঙ্গা থানার পুলিশ বেড়াচাঁপা -১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের নন্দীপাড়া থেকে বছর চব্বিশের জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করে। ঘটনাটি ঘটেছে দেগঙ্গার হাদিপুর ঝিকরা-১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত  এলাকায়। নির্যাতিতা নাবালিকা ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, নির্যাতিতার মা আজমীর শরীফে বেড়াতে যান।

সে বাড়িতে তার বাবার সঙ্গে থাকত। গত ২২ অক্টোবর তার বাবা সকাল বেলায় ঘুম থেকে উঠে দেখেন মেয়ে ঘরে নেই। এরপরে চারিদিকে খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। পরে দেগঙ্গা থানায় গিয়ে নিখোঁজের অভিযোগ দায়ের করে নির্যাতিতার  বাবা। ঘটনার তদন্তে নামে পুলিশ। ২৪ অক্টোবর নাবালিকাকে পুলিশ উদ্ধার করে তার পরিবারের হাতে তুলে দেয়।

এরপরে নির্যাতিত নাবালিকা বাড়িতে গিয়ে শারীরিক অসুস্থতায় মুষড়ে পড়ে। তার এক বৌদির সঙ্গে শারীরিক অত্যাচার হয়েছে এবং  দুদিন ধরে ধর্ষণ তাকে করা হয় বলে বিষয়টি খুলে বলে। জানা গেছে অভিযুক্ত জাকির হোসেন মেয়েটিকে প্রাণনাশের হুমকি দেয় সেই কারণে এই নির্যাতনের কথা চেপে ছিল ওই নাবালিকা।

নির্যাতিতার বৌদি বিষয়টি জানার পরে  তার বাবাকে সম্পূর্ণ বিষয়টি জানায়। বাবা বিস্তারিত জানতে পেরে দেগঙ্গা থানায় মঙ্গলবার রাতে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে দেগঙ্গা থানার পুলিশ অভিযুক্ত জাকির হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে। এছাড়াও নির্যাতিতা নাবালিকা জানিয়েছে অভিযুক্ত জাকিরের সঙ্গে এই নির্মম অত্যাচারে সহযোগিতা করেছে দুই যুবক।

তাদের খোঁজে তল্লাশি চলছে। অভিযুক্ত জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা রুজু করে বুধবার বারাসত জেলা আদালতে পুলিশি হেপাজতে পাঠানো হবে বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!