ফের অশান্ত ভাটপাড়া, উদ্ধার হল প্রচুর তাজা বোমা! এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য

খড়গপুর ২৪×৭: ভাটপাড়ায় উদ্ধার হল প্রচুর তাজা বোমা৷ ঘটনাকে ঘিরে ইতিমধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে স্থানীয় কয়েকজনকে সন্দেহ করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷ ঘটনাকে ঘিরে ইতিমধ্যেই তৃণমূল বিজেপির মধ্যে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে উত্তর ২৪ পরগণার জগদ্দল বিধানসভার ভাটপাড়া পুরসভার ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের মাদরাল জয়চন্ডিতলা এলাকার একটি ক্লাবে বিপুল সংখ্যক কৌটো বোমা ও গুলি উদ্ধার হয়৷ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই এলাকায় পুলিশ অভিযান চালায়৷ এরপর ওই এলাকা থেকেই উদ্ধার হয় বোমা, গুলি ও বোমা তৈরির মশলা৷

যদিও অভিযানের সময় হাতেনাতে কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ৷ তবে এলাকার ত্রাস অঙ্কিত সাউ, লক্ষ্মণ দেবনাথ-সহ একাধিক পুলিশের সন্দেহের তালিকায় রয়েছে৷
নির্বিঘ্নে ভোট করাতে এদের গ্রেফতার করা হতে পারে বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷ কারণ পঞ্চম ও ষষ্ঠ দফায় উত্তর ২৪ পরগণার বিস্তীর্ণ এলাকায় নির্বাচন রয়েছে৷ সেই সময় কোনো রকম গণ্ডগোল এড়াতে আগে থেকেই ব্যাবস্থা গ্রহণ করবে পুলিশ৷ তাই প্রমাণের ভিত্তিতে তাদের গ্রেফতার করা হতে পারে পুলিশ সূত্রে খবর৷

উত্তর ২৪ পরগণার জগদ্দল বিধানসভার ভাটপাড়া পুরসভার ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের মাদরাল জয়চন্ডিতলা এলাকায় বোমা উদ্ধারের পর ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়৷ রাজনৈতিক চাপানউতোর চলছে৷ এই এলাকা বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের খাসতালুক হিসেবে পরিচিত৷

তাঁর অভিযোগ, নির্বাচনে অশান্তি পাকাতেই বোমা মজুত করছে তৃণমূল৷ যদিও পালটা তৃণমূলের মুখপাত্রা কুণাল ঘোষের দাবি, এলাকায় সন্ত্রাসের আবহ তৈরি করতে এই বোমা মজুত করছিল খোদ বিজেপি সাংসদই৷ চতুর্থ দফার ভোটে রক্তে ভিজেছে বাংলার মাটি৷ সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে তাই পঞ্চম দফার আগে সচেতন হচ্ছে পুলিশ প্রশাসন৷