দেগঙ্গায়, চলল গুলি! অভিযোগ অস্বীকার করল নির্বাচন কমিশন

খড়গপুর ২৪×৭: রাজ্যে পঞ্চম দফার ভোটেও কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠল। এবার দেগঙ্গায়। তবে তা কাউকে উদ্দেশ্য করে নয়, শূন্যে গুলি চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। যদিও নির্বাচন কমিশন স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ অস্বীকার করেছে। কমিশনের রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিভ্রান্তি ছড়াতেই এমন অভিযোগ। কোথাও কোনও গুলি চলেনি।

অকুস্থল উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গা। স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য, দেগঙ্গার ২১৫ নম্বর বুথের প্রায় ৫০০ মিটার দূরে একটি আমবাগানের মধ্যে এলাকারই কয়েকজন বসে গল্প করছিলেন। তাঁদের কোনও কথা না শুনেই সেখানে প্রায় চার-পাঁচ রাউন্ড গুলি শূন্যে  চালানো হয় বলে অভিযোগ। এমনকী পুলিস গিয়ে তাঁদের মারধরও করেছে বলে জানিয়েছেন তাঁরা। প্রায় ৭ গ্রামবাসী আহত হয়েছেন। ঘটনার পরপরই বুথের সামনে গিয়ে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা।

এদিকে এই দফাতেও কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠল। দেগঙ্গায় ৮১ নম্বর বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে ভোটারদের মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এলাকায় উত্তেজনাও রয়েছে। আবার নদিয়ার শান্তিপুরে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় মানুষ। বিশেষত মহিলারা কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখান। পুলিশ এবং কেন্দ্রীয় বাহিনী কোনওরকমে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করে।