Monday, November 29, 2021
Homeউত্তর ২৪ পরগনাতৃণমূলের শহিদ দিবসের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে চলল গুলি,নিহত এক...
Advertisement

তৃণমূলের শহিদ দিবসের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে চলল গুলি,নিহত এক মহিলা সহ ২

Advertisement

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: তৃণমূলের শহিদ দিবসে পতাকা তোলাকে কেন্দ্র করে ভয়ঙ্কর কাণ্ড হাড়োয়ায়। দলেরই দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে মৃত্যু হল এক মহিলা সহ ২ জনের। গুলিবিদ্ধ উভয়পক্ষের ১২ জন।

- Advertisement -
Advertisement
- Advertisement -

বুধবার গোটা রাজ্যের সঙ্গে হাড়োয়ার ট্যাংরামারি গ্রামেও আয়োজন করা হয়েছিল শহিদ দিবসের অনুষ্ঠান। সেখানেই পতাকা তোলাকে কেন্দ্র করে দলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। এর মধ্যেই চলে গুলি।

পুলিস সূত্রের খবর, গুলিতে নিহতরা হলেন লক্ষ্ণী সর্দার(৬২) ও সন্যাসী সর্দার(৩৮)। প্রসঙ্গত, ঘটনায় তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সাংঘর্ষের অভিযোগ উঠলেও এনিয়ে তৃণমূলের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, বিধানসভা নির্বাচনের আগে এলাকার বেশ কয়েকজন তৃণমূলের নেতা-কর্মী বিজেপিতে যোগ দেয়। নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর ফের তারা দলের এক প্রভাবশালি নেতার হাত ধরে তৃণমূলে ফিরে আসে।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন ধরে হাড়োয়ার বাছড়া মোহনপুর পঞ্চায়েত এলাকায় দলের আদি এবং নব্যদের মধ্যে সংঘর্ষ চলছিল। গুলি-বোমার লড়াইয়ে উত্তপ্ত ছিল এলাকা। তারই মধ্যে এ দিন সকালে একপক্ষ দলীয় পাটি অফিসের সামনে ২১ শে জুলাই উপলক্ষে দলের পতাকা তোলায় নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায়।

এদিন দলীয় পতাকা তোলা হয়ে গেলে হইহুল্লোড় করার পর খাওয়া শেষে দুপুর আড়াইয়ে নাগাদ এক পক্ষ যখন বাড়ির উদ্দেশ্য রওনা দেয় সে সময়ে অতর্কিতে তাদের উপর আক্রমণ অন্য গোষ্ঠীর গোষ্ঠীর সমর্থকেরা। শুরু হয় মুড়ি মুড়কির মত গুলি ও বোমা বৃষ্টি।

বাড়ি ফেরার পথে ওই সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে যান লক্ষ্মী মণ্ডল। গুলি এসে লাগে লক্ষ্মীর পেটে। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। বুকে গুলি লাগে সন্যাসী সর্দারের। স্থানীয়রা দ্রুত তাকে হাড়োয়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

Advertisement

RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

error: Content is protected !!